ভিডিওতে অসদাচারণ, সৌদি কিশোর গ্রেফতার

0

আইটি ডেস্ক : ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্রিমিং-ভিডিও স্টারের সঙ্গে অনৈতিক আচরণের কারণে গ্রেফতার করা হয়েছে আবু সিন নামের সৌদি কিশোরকে। ক্রিস্টিনা ক্রকেট নামের জনপ্রিয় ভিডিও স্ট্রিমারের সঙ্গে ভিডিওতে অসদাচরণ করা হয়ে বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।
রিয়াদ পুলিশেরে এক মুখপাত্র কর্নেল ফাওয়াজ আল-মায়মান বলেন, গ্রেফতার হওয়া ওই কিশোর অনলাইনে আবু সিন নামে পরিচিত। “অনৈতিক আচরণের” দায়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
আবু সিনের আসল পরিচয় জানা যায়নি। অপরদিকে ক্রকেট সমালোচিত লাইভ-স্ট্রিমিং সাইট ‘ইউনাউ’-এর একজন জনপ্রিয় ব্লগার।
ক্রকেটের সঙ্গে কথোপকথনের বেশ কিছু ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করা হলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানায় অনেক ব্যবহারকারী, জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।
মায়মান বলেন, “তার ভিডিওতে বহু মন্তব্য করা হয় এবং এর মধ্যে অনেকগুলোতেই মন্তব্যকারীরা তার আচরণের শাস্তি দাবি করেন।”
ইউটিউবে প্রকাশিত ভিডিওগুলো মূলত সমালোচিত হয়েছে তাদের ভাষার জটিলতার কারণে। দুই জনের ভাষা আলাদা হওয়ায় তাদের কথোপকথনের ভঙ্গি সকলের নজরে আসে। ভিডিওতে গ্রেফতার হওয়া কিশোরের ভাঙ্গা দাঁতের জন্য তাকে ডাকনাম দেওয়া হয়।
ভিডিওগুলোর জনপ্রিয়তা দেখে বিস্মিত হয়েছেন ক্রকেট। গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ইউনাউ প্রচারকারী হিসেবে তিনি তার ভক্তদেরকে আমন্ত্রণ করতে পারেন। ‘গেস্টিং’ ফিচারের মাধ্যমে এসব ভক্ত স্পিøট-স্ক্রিনে তার সঙ্গে ব্রডকাস্টে অংশ নিতে পারেন।
“আমি বালকটিকে অতিথি হিসেবে গ্রহণ করি, আমি জানিনা সে কি বলছে কারণ আমি আরবি বলি না, সবাই মনে করছিল সে আসলেই মজার এবং সবাই তাকে পছন্দ করছে এবং আমি ধারণা করছি ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে উঠেছে,” বলেন ক্রকেট।
“সে খুব বেশি ইংরেজি বলেনি, তাই আমি তাকে বোঝানোর চেষ্টা করছিলাম আমি সে সময় কি বলছিলাম। এটি ভালো কোনো যোগাযোগ ছিল না। সে নাচছিল এবং মজা করছিল, আমরা দুইজনই সেখানে নাচছিলাম কারণ আমরা শব্দ দিয়ে যোগাযোগ করতে পারছিলাম না। এটা খুব মজার ছিল।”
তারা দুইজন যে কোনো সম্পর্কেও জড়িত ছিলেন না সেটিও নিশ্চিত করেছেন ক্রকেট।
পুলিশের একজন মুখপাত্র জানান আবু সিন ১৯ বছর বয়সী। আর ক্রকেট বয়সে তার থেকে দুই বছরের বড়।
মায়মান জানান, ইউটিউবে সিনের বিরুদ্ধে মন্তব্য আসার পর থেকেই তাকে ধরার চেষ্টা করা হচ্ছিল।
ক্রকেট আরও জানান, তিনি কেনো সিনের সঙ্গে কথা বলছেন এটি জিজ্ঞেস করে অনেকেই তাকে বিরক্ত করছেন। “তারা বলেছেন আপনি যেটা করেছেন তার জন্য আমি আপনাকে ঘৃণা করি।”
যদিও তিনি বলেন, এই ধরনের মন্তব্য সংখ্যালঘু “আমি তাদেরকে ব্লক করে দিয়েছি এবং সরে এসেছি।”
আবু সিনকে গ্রেফতার করার ভিডিও ইউনাইউ-এ লাইভ স্ট্রিম করা হয়। পরবর্তীতে ভিডিওটি ইউটিউবেও আপলোড করা হয়েছে।

Share.

About Author

Leave A Reply