শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ করার যৌক্তিকতা রয়েছে: কাদের

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকা: রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ করার যৌক্তিকতা আছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দুই সহপাঠীকে হারিয়ে তারা সড়কে নেমেছে, তাদের এই বিক্ষোভ ক্ষোভের বাস্তবতাও আছে।
বুধবার রাজধানীর সেতু ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী সপ্তাহে প্রস্তাবিত সড়ক নিরাপত্তা আইন অনুমোদনে মন্ত্রিসভায় উত্থাপন করা হবে। আগামী দুই মাসের মধ্যে আইনটি সংসদে পাস হবে বলে আমি আশা করছি।
তিনি বলেন, দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ায় সবারই খারাপ লেগেছে। প্রধানমন্ত্রী মর্মাহত, আমরা সবাই তাদের জন্য কষ্ট পেয়েছি। তারপরও আমি শিক্ষার্থীদের বলব, একটু ধৈর্য ধরো, সময় দাও।
মন্ত্রী আরও বলেন, ‘নৌপরিবহনমন্ত্রী নিজেও তার বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। সড়ক নিরাপত্তা আইন পাস হলেই কাজ শুরু হবে। দুর্ঘটনা যারা ঘটিয়েছে, তাদের অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে রাস্তাঘাটে যানবাহন কম, বিপাকে পড়েছেন মানুষ-এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বাভাবিকভাবেই যারা গাড়ির মালিক, তারা তো গাড়ি বের করবেন না এটাই স্বাভাবিক। গতকালও গাড়ি ভাঙচুর হয়েছে। তবে এই পরিস্থিতি শিগগিরই কেটে যাবে। সবকিছু স্বাভাবিক হবে।
আইন তো হয়, কিন্তু দেখা যায় নৌমন্ত্রী শ্রমিক ফেডারেশন করেন, ধর্মঘটে যান। তিনি মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে বাধা দিলে কী হবে-এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আইন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে নৌপরিবহনমন্ত্রী বাধা না। এটা বাস্তবায়ন করবে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। এখানে নৌ মন্ত্রণালয়ের কোনো ভূমিকা নেই। তিনি কোনো হস্তক্ষেপ করতে পারবেন না।
উল্লেখ্য, রবিবার বাসচাপায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও ১৫ শিক্ষার্থী। এ ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার চতুর্থ দিনের মতো শিক্ষার্থীরা রাজপথে নেমে এলে পুরো ঢাকা স্থবির হয়ে পড়ে।

Share.

About Author

Leave A Reply