‘মানবিক পৃথিবী’র আত্মপ্রকাশ

0

“মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য” এমন একটি মানবিক স্লোগানের প্রচলন থাকলেও শতাব্দীর পর শতাব্দী পেড়িয়ে গেলেও পৃথিবীর মাঝে মানুষে মানুষে হিংসা বিদ্বেষ আর সহিংসতার আগ্রাসন, ক্ষমতার দম্ভ আর মানুষের অমানবিক আচরণ বরং বেড়েই চলছে।
উন্নত পৃথিবীর এই সময়ে এসেও এ সমাজে অসংখ্য সুবিধাবঞ্চিত অসহায় মানব মানবী ও শিশু রেললাইনের পাশে, বাসস্ট্যান্ডে, রাস্তায় পাশে জীবন কাটাচ্ছে খাদ্য, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিৎসার অভাবে। এসব মানুষের প্রকৃত মানবিক অধিকার নিশ্চিত করা সরকারের একার পক্ষে সম্ভব হয়ে উঠেনা অনেক সময়ই। এদেশের অসংখ্য সংগঠন বিভিন্ন সময়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে সাহায্য সহযোগিতা কওে আসছে প্রতিনিয়ত। সে সকল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও সংগঠকদের জন্য রইলো অফুরন্ত অভিনন্দন ও ভালোবাসা। তারপরও এই অসহায় মানুষ প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম সেবা পেয়ে থাকে। এ রকম অসহায়, অধিকার বঞ্চিত মানুষের দুঃখ কষ্ট লাঘব করার লক্ষ্যে আমরা “মানবিক পৃথিবী” নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গঠন করার প্রয়াস গ্রহণ করেছি। আমাদের প্রত্যাশা দেশের আনাচে-কানাচে পথে-প্রান্তরে ছড়িয়ে থাকা অসহায় অমানবিক জীবন-যাপন করা মানুষের জন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বস্ত্রসহ তাদের বসবাসের জন্য স্থায়ীভাবে একটি বাসস্থান নির্মাণ করা। একটি সত্যিকারের মানবিক পৃথিবী গড়তে সকল গণমাধ্যম কর্মী, সমাজসেবক, ব্যবসায়ীসহ দেশের সকল শ্রেণীর মানুষের সহযোগিতা ও শুভকামনা প্রত্যাশা করছি। সকলকে পাশে নিয়ে আমরা শপথ করবো কোন সুবিধা বঞ্চিত মানুষ এদেশের রাস্তায় থাকবে না। সকলের সাহায্যে অসহায় মানুষগুলোর মানবিক সুবিধা নিশ্চিত করে একটি সুখী সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ উপহার দিবো।
এই প্রত্যয় নিয়ে “মানবিক পৃথিবী” গড়তে ৬ জন স্বেচ্ছাসেবীর উদ্যোগে সংগঠনের আত্মপ্রকাশ উপলক্ষে রাজধানীর মালিবাগে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ১০ ঘটিকায় এই সাংবাদিক সম্মেলন করেন সংগঠনের ৬ জন উদ্যোক্তা। এ সময় সংগঠনের আহবায়ক মোহাম্মদ মাসুদ (সম্পাদক দৈনিক অন্যদিগন্ত) লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বর্ণনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন, এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের অন্যান্য উদ্যোক্তাগণ- হাফিজুর রহমান শফিক ( সম্পাদক ও প্রকাশক সকালের সংবাদ), রোমানা আক্তার পুতুল, (ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী), বিজয় (গণমাধ্যম কর্মী), স্বপ্ন রোজ (গণমাধ্যম কর্মী), এবং জাকিয়া খানম স্বপ্না (সংগঠক)। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

Share.

About Author

Leave A Reply