সরকারি শূন্য পদ তিন লাখের বেশি: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

0

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর : বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের অধীনে শূন্য পদের সংখ্যা ৩ লাখ ১০ হাজার ৫১১টি বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। সোমবার জাতীয় সংসদে সাংসদ আবুল কালামের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।
মন্ত্রী বলেন, কোনো কোনো দপ্তর/সংস্থার নিয়োগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন, কিছু কিছু পদ পদোন্নতির মাধ্যমে পূরণযোগ্য এবং কিছু কিছু পদ কর্মকমিশনের মাধ্যমে পূরণযোগ্য বিধায় শূন্য পদ পূরণের তারিখ নির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা সম্ভব নয়।
চট্টগ্রাম-৪ আসনের সাংসদ দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসনমন্ত্রী আশরাফুল ইসলাম জানান, আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স প্রাপ্তি ও নবায়নের আবেদন, স্ট্যাম্প ভেন্ডার লাইসেন্সপ্রাপ্তি ও নবায়নসহ জেলা প্রশাসন থেকে ৩৭ ধরনের সেবা অনলাইনে প্রদান করা হচ্ছে। এতে দ্রুততম সময়ে জনসাধারণকে কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।
নোয়াখালী-৩ আসনের মামুনুর রশীদ কিরণের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সরকারি আইনি সহায়তায় জাতীয় হেল্পলাইন চালুর পর টোল ফ্রি নম্বরে কল করে ২৮ হাজার ৫৯১ জনকে আইনি পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার মাধ্যমে ২ লাখ ৪০ হাজার ৫৪৭ জনকে আইনগত সহায়তা প্রদান করা হয়েছে এবং জেলা লিগ্যাল এইড অফিসারের মাধ্যমে ৮ হাজার ১২৯টি মামলা মধ্যস্থতার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা হয়েছে। শ্রম আইন-সহায়তা সেলের মাধ্যমে ১০ হাজার ৮৬১ জনকে সহায়তা প্রদান ও ৪৪২টি মামলা নিষ্পত্তি করা হয়েছে।
মন্ত্রী জানান, ২০০৯ থেকে ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং সমপর্যায়ের ট্রাইব্যুনালে ১ কোটি ১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৬১টি মামলা নিষ্পত্তি করা হয়েছে।
এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, আর ভি মীন সন্ধানী জাহাজের মাধ্যমে সাগরে ১৬টি সার্ভে ক্রুজ পরিচালনা করে মাছের মোট ৩৪৯টি প্রজাতি শনাক্ত করা হয়েছে। জরিপ চালিয়ে ২৯৮ প্রজাতির মাছ, ২৩ প্রজাতির চিংড়ি, ১৬ প্রজাতির কাঁকড়া এবং ১২ প্রজাতির মোলাস্ক পাওয়া গেছে। জৈবিক বিশ্লেষণের জন্য এসব মাছের তথ্য সংরক্ষণ করা হয়েছে।
এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘অনেক ক্ষেত্রে জলদস্যুরা ধরা পড়ার পর নিজেদের মৎস্যজীবী পরিচয় দিয়ে থাকে। যার কারণে আমরা মৎস্যজীবীদের চিহ্নিত করতে পরিচয়পত্র দিচ্ছি। যেসব জেলে ইলিশ শিকার করেন, তাঁদের ইলিশ মাছ ধরার নিষিদ্ধ সময়ে ওই পরিচয়পত্র দেখে ৪০ কেজি করে চাল সহযোগিতা করা হয়।
প্রশ্নোত্তরের আগে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিকেল পাঁচটার পর সংসদের অধিবেশন শুরু হয়।

Share.

About Author

Leave A Reply