কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন নওয়াজ

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ এবং জামাতা মোহাম্মদ সফদার কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন।
বিবিসি জানিয়েছে, দুর্নীতির অভিযোগে নওয়াজ শরীফের ১০ বছরের কারাদ- শুরুর দুমাস পর বুধবার সন্ধ্যায় রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগার থেকে তাদের মুক্তি দেয়া হয়। এর আগে ওইদিন ইসলামাবাদ হাইকোর্ট নওয়াজ ও তার মেয়ের দ- স্থগিত করে তাদের মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন ।
গত জুলাই মাসে দুর্নীতির দায়ে নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদ-াদেশ দেন আদালত। এছাড়া তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে সাত বছর ও জামাতা মোহাম্মদ সফদারকে এক বছরের কারাদ-াদেশ দেওয়া হয়। নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য লন্ডন থেকে লাহোরে ফেরার পর বিমানবন্দরেই তাদের গ্রেফতার করার পর কারাগারে পাঠানো হয়।
নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (পিএসএল-এন) জুলাইয়ের শেষ দিকে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ইমরান খানের পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দলের কাছে পরাজিত হয়। নতুন প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন ইমরান খান।
নওয়াজ কোনো অন্যায় করেননি উল্লেখ করে হাইকোর্টে আপিল করেন। একই সঙ্গে তার মেয়ে মরিয়ম ও জামাতার আইনজীবীও অনুরূপ আপিল করার পর হাইকোর্টে তাদের মুক্তির নির্দেশ দেন।
এর আগে গত সপ্তাহে নওয়াজের স্ত্রী কুলসুম নওয়াজ লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার জানাজায় যোগ দিতে ১২ সেপ্টেম্বর নওয়াজকে প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল।
জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জন এবং লন্ডনে চারটি বিলাসবহুল বাড়ির মালিকানা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে নওয়াজকে ১০ বছর ও তার মেয়ে মরিয়মকে সাত বছরের কারাদ- দেয় পাকিস্তানের একটি আদালত। এছাড়া কর্মকর্তাদের সহযোগিতা না করায় মরিয়মের স্বামীকে এক বছরের কারাদ- দেওয়া হয়।
নওয়াজের আপিলের পর বুধবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি আতহার মিনাল্লাহ বলেন, বেশকিছু অ্যাপার্টমেন্টের মালিকানা বিষয়ে নওয়াজের বিরুদ্ধে যে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছে তার পক্ষে কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেনি ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো।
বুধবার আদিয়ালা কারাগারে থেকে বেরিয়ে গাড়িতে ওঠার সময় নওয়াজ, মেয়ে মরিয়ম ও জামাতা সফদারকে সমর্থকরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এ সময় সমর্থকরা মিষ্টিও বিতরণ করেন। এরপর তারা তিনজন লাহোরের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

Share.

About Author

Leave A Reply