নোয়াখালীতে উন্নয়ন মেলায় বিশেষ ভুমিকা রাখায় সম্মাননা সনদ ও শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান

0

নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালী জিলা স্কুল মাঠে চতুর্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলায় প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় বিশেষ ভুমিকা রাখায় মিডিয়ার পক্ষ থেকে নিউজ টোয়েন্টি ফোর ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি আকবর হোসেন সোহাগ ও ইন্ডিপিন্ডেন্ট টেলিভিশন ও যায়যায় দিনের জেলা প্রতিনিধি আবুনাছের মঞ্জুকে জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস সম্মাননা সনদ ও শুভেচ্ছা স্নারক তুলে দেন। জেলা প্রশাসকের সভা কক্ষে আনুষ্ঠানিক ভাবে এ সম্মাননা দেয়া হয় । এ ছাড়া বিভিন্ন ষ্টল অংশ গ্রহন কারীদেরকে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়েছে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব ) আবদুর রউফ মন্ডল , স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মো: মাসুদ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ কামাল হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রসাসক (সার্বিক) মো: আবু ইউসুফ ও এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী এম এ ছাত্তার ।

পাসপোর্ট অফিস জুড়ে দালালদের দৌরাতœ্য
নোয়াখালী প্রতিনিধি: দেশের সর্বত্র পাসপোর্ট অফিস জুড়ে দালালদের দৌরাতœ্য। অতিরিক্ত অর্থ আদায় ও গ্রাহক সেবা না দিয়ে হয়রানি ও ভোগান্তির অভিযোগ পাওয়া গেছে। দুদক সূত্রে জানা যায়, দুদক হটলাইন ১০৬ অভিযোগের ভিত্তিতে পরিচালিত অভিযান সংক্রান্ত প্রতিবেদন দেশের সকল পাসপোর্ট অফিসে দালালদের খপ্পরে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ সেবাগ্রহণকারী মানুষ। নোয়াখালীর সুবল আহম্মদ সহকারি পরিচালক দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, দুদক প্রধান কার্যালয় ঢাকা গত ৭ অক্টোবর টেলিফোনিক নির্দেশ সমন্বয় গঠিত দুদক টিম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস কুমিল্লা অভিযান চালিয়ে সেবা গ্রহণকারি অনেককে লাইনে দাড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। তাদের সাথে কথা বলে জানা যায় যে, দালাল স্বাক্ষরযুক্ত ভিজিটিং কার্ড আবেদনের সাথে দেখাতে না পারলে আবেদন গ্রহণ করা হয়না। তাদের আবেদন নানা অজুহাতে প্রেরত দেয়া হয়। এ ছাড়া সরকারি নির্ধারিত ফির বাহিরে আড়াই/ তিন হাজার টাকা অতিরিক্ত দিতে হয়। দুদক টিমের অভিযান কালে হাতে নাতে একজন দালালকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আবদুস সাত্তার, পিতা-মৃত আবদুল ওহাব, সাং-কাঠালিয়ার নিকট হতে অনেকগুলি পাসপোর্ট সম্পর্কিত কাগজপত্র, পাসপোর্ট গ্রহণের রিসিট, জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্মসনদসহ অনেক কাগজপত্র যব্দ করা হয়েছে। জব্দকৃত কাগজপত্র মোবাইল কোর্ট জব্দ তালিকায় রাখা হয়েছে। উক্ত আসামিকে মোবাইলে কোর্টে সোপর্দ করিলে এক বছর জেল প্রদান করা হয়েছে। উপ-পরিচালক আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস জানান যে, তিনি চেষ্টা করছেন পাসপোর্ট অফিস দালাল মুক্ত রাখতে। ভবিষ্যতে কোন সেবা গ্রহিতা হয়রানি স্বীকার না হয় এবং অতিরিক্ত টাকা দিতে হবে না মর্মে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন বলে দুদক টিমকে নিশ্চিত করেছেন। একই চিত্র নোয়াখালীতেও।

Share.

About Author

Leave A Reply