মঠবাড়িয়ায় শ্যালিকাকে আটকে রেখে ধর্ষনের অভিযোগে দুলাভাই আটক

0

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি : মঠবাড়িয়ায় ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়–য়া (১২) এক স্কুল ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আপন দুলাভাই মো. শাহীন খান (২৫) এর বিরুদ্ধে। এদিকে গত দুইদিন ধরে নিখোঁজ অবস্থায় দুলাভাইয়ের নির্যাতনের শিকার ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে অভিযুক্ত শাহিন এর পরিবার শুক্রবার সকালে বাড়িতে পৌছে দেয়। গ্রামবাসি অভিযুক্ত শাহিন খানকে আটক করে নির্যাতিত স্কুল ছাত্রীর স্কুল শিক্ষকদের নিকট সোপর্দ করে। পুলিশ খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত দুলাভাইকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত শাহিন খান উপজেলার গুলিসাখালী ইউনিয়নের বুখইতলা বান্ধবপাড়া গ্রামের মো. ইসমাইল খানের ছেলে।
থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়ার সাপলেজা ইউনিয়নের বিবিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণী পড়–য়া স্কুল ছাত্রীকে গত ৫ডিসেম্বর বুধবার রাতে নিজ পড়ার টেবিলে লেখা পড়া করছিল। এসময় পরিবারের লোকজন ঘুমিয়ে থাকার সুযোগে আপন দুলাভাই মো. শাহীন খান মেয়েটির মুখ চেপে তুলে নিয়ে যায়। সকালে ওই স্কুল ছাত্রীকে ঘরে না পেয়ে তার বাবা মেয়ে নিখোঁজের বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন।
এ বিষয়ে সাপলেজা বিবিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মাহফুজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রী লিখিত অভিযোগ দিলে গ্রামবাসির সহায়তায় অভিযুক্তকে আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শওকত আনোয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত দুলাভাইকে আটক করা হয়েছে। এ ঘনায় ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ হতে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

Share.

About Author

Leave A Reply