বাউল খোদাবকশ শাহের ২৯ তম তিরোধান উপলক্ষে দুইদিনব্যাপী সাধুসঙ্গ

0

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি :
চুয়াডাঙ্গায় শ্রদ্ধা আর ভালাবাসায় একুশে পদকপ্রাপ্ত দেশের প্রথম বাউল সাধককবি -সুরসাগর খোদাবকশ শাহের ২৯ তম তিরোধান দিবস পালিত হচ্ছে । এ উপলক্ষে আলমডাঙ্গা উপজেলার জাহাপুর গ্রামে খোদাবকশ শাহ নিকেতন প্রাঙ্গণে আজ সোমবার সকালে দুইদিনব্য াপী সাধুসঙ্গ শুরু হয়।
বেলা ১১ টায় জাহাপুর গ্রামের খোদাবকশ শাহ নিকেতন থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রা শেষে কবির মাজারে পরিবার ও মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। এরপর মাজার প্রাঙ্গণে খোদাবকশ শাহের লেখা গান পরিবেশন করা হয়।
পরিবারের পক্ষে কবি পুত্র আব্দুল লতিফ শাহ, পুত্রবধু রেখা বিশ্বাস ,নাতনি তানিয়া বিশ্বাস ও সোনিয়া বিম্বাস , নাতি রাজ তন্ময় ও নাতি জামাই ড. সইমন জাকারিয়া । জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটী কমান্ডার মোস্তফা খান ও মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন । সঙ্গীত পরিবেশন করেন কবিপুত্র আব্দুল লতিফ বিশ্বাস ,নাতনি তানিয়া বিশ্বাস ও সোনিয়া বিম্বাস। এছাড়া,গঞ্জের শাহ , মিলন শাহ ও অন্তর সরকার খোদা বকশ শাহের গান পরিবেশন করেন।
খোদাবকশ শাহ ১৯২৮ সালের ১৩ এপ্রিল ( ১৩৩৪ বঙ্গাব্দের ৩০ চৈত্র) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার জাহাপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৩৯৬ সালের পহেলা মাঘ (১৯৯০) ইহলোক ত্যাগ করেন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ১৯৯১ সালে খোদাবকশ শাহকে মরণোত্তর একুশে পদক প্রদান করেন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত শিক্ষক খোদাবকশ শাহ বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত লালন সঙ্গীত শিল্পী ছিলেন। জীবদ্দশায় তিনি নিজেও ৯৫০ টি গান রচনা করেন।

Share.

About Author

Leave A Reply