অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণ বন্ধে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকা : অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রদর্শন এবং ভিডিও পাইরেসী বন্ধকল্পে তথ্য মন্ত্রণালয় একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছে। গতকাল সোমবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ এ কথা জানান। মন্ত্রী জানান, এই টাস্কফোর্স পণ্য বা অশ্লীল ভিডিও এবং পাইরেসীর কারণে সিডি ও ভিডিও জব্দ করে থাকে। এ ছাড়া দায়ীদের বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেফতার করে থাকে। তিনি জানান, অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রদর্শন এবং ভিডিও পাইরেসী রোধকল্পে তাৎক্ষণিক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মনিটরিং সেলও গঠন করা হয়েছে। মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ বলেন, সৃষ্টিশীল চলচ্চিত্র নির্মাণে উৎসাহিত করার জন্য প্রতিবছর পূর্ণদৈর্ঘ্য ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের লক্ষ্যে সরকারি অনুদান প্রদান করা হয়ে থাকে। তিনি জানান, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৫টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের অনুকূলে ২ কোটি ৮০ লাখ টাকা এবং ৬টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের অনুকূলে ৬০ লাখ টাকাসহ সর্বমোট ৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা সরকারি অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এদিকে, অনলাইন মিডিয়ার নীতিমালা চূড়ান্ত হলে এই নীতিমালার আওতায় সব অনলাইন সংবাদপত্রকে নিবন্ধিত হতে হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সেই সঙ্গে সংবাদপত্রের জন্য ঘোষিত নবম ওয়েজ বোর্ড শিগগিরই বাস্তবায়ন করা হবে বলেও জানান তিনি। বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য নাসরিন জাহান রতœা ও আওয়ামী লীগের সদস্য মোর্শেদ আলমের সম্পূরক প্রশ্নের উত্তরে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশে অনলাইন মিডিয়ার ব্যাপক প্রসার ঘটেছে। ২০০৮ সালে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিলো ৪০ লাখ। বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৮ কোটির বেশি। দেশে কয়েক হাজার অনলাইন সংবাদপত্র রয়েছে। আমরা অনলাইন নীতিমালা করছি। এই অনলাইন নীতিমালা মন্ত্রিসভায় পাস হওয়ার পর সব অনলাইন সংবাদপত্রকে নীতিমালার আওতায় এনে নিবন্ধিত করা হবে। আমরা এরইমধ্যে অনেক অনলাইন সংবাদপত্র সম্পর্কে খোঁজ খবর নিয়েছি, নিচ্ছি। সব অনলাইনকেই নীতিমালার আওতায় এসে নিবন্ধিত হতে হবে। সংবাদপত্রের নবম ওয়েজ বোর্ড প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, নবম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বর্তমান মন্ত্রিসভার প্রথম সভাতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি কমিটি গঠন করে দিয়েছেন। আমরা স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে বৈঠক করে মত বিনিময় করছি। আশা করছি শিগগিরই নবম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

Share.

About Author

Leave A Reply