শিবচরে ডেঙ্গু রোধে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন

0

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি : মাদারীপুরের শিবচরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ডেঙ্গু রোধে ৬ আগস্ট মঙ্গলবার সকালে উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সামসুদ্দিন খানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আসাদুজ্জামান এর নেতৃত্বে উপজেলার একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ডেঙ্গু রোধে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনও লিফলেট বিতরণ করে উপজেলা প্রশাসন।এসময় সাথে ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার অনুপম রায়সহ আরো ছিলেন উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি মো. রাজিব ঢলী,সাধারণ সম্পাদক আসিফ মাদবর, বরহামঞ্জ সরকারি কলেজের ভিপি শায়েখ হাওলাদর,জিএস মিজুর রহমান, এজিএস তাইয়াবা ইসলাম, পৌর ছাত্র লীগের সভাপতি হাবিব বেপারী , সাধারণ সম্পাদক সৌরভ সহ ছাত্র লীগের নেতা কর্মিরা। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সামসুদ্দিন খান বলেন,আমাদের চিফ হুইপনূর-ই আলম চৌধুরী অতন্ত্য সচেতন আমাদেরকে ফোন করে ডেঙ্গুরোধে কাজ করার নির্দেশ দেন। মূলক তার নির্দেশেই আমারা সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন করতেছি। উপজেলার প্রতিটি গ্রামে আমাদের ক্যাম্পেইন কাজ অব্যহত থাকবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আসাদুজ্জামান বলেন,আমরা মানুষকে সচেতন করতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক লিফলেট তৈরি করেছি। সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনের পাশাপাশি প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে লিফটেল বিতরণের মাধ্যমে তাঁদের পরিবারকেও আমার সচেতন করতেছি। আমাদের এই সচেতনমূলক কার্যক্রম অব্যহত থাকবে।

shibch Forme dead 6-8-19
শিবচরে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এএইচ আ: মান্নান খান আর নেই
শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি : মাদারীপুরের শিবচর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আওয়ামী লীগ নেতা এ.এইচ আ: মান্নান খান হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার দুপুর দেড়টায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্ন ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৭৬ বছর। মৃত্যুকালে তিঁনি স্ত্রী, দুই মেয়েও এক ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। পারিবারিক সূত্র জানায়, তার ছোট মেয়ে মিঠু খান ও মেয়ে জামাতা প্রবাসে বাস করেন। একারণে তাঁর মরদেহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়েছে। মেয়ে-জামাতা দেশে ফিরে আসলে আগামীকাল বুধবার শিবচর উপজেলা চত্বরে মরহুমের জানাজার নাম অনুষ্ঠিত হবে। এবং নামাজে জানাজা শেষে উমেদপুর তাঁর নিজ গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁকে দাফন করা হবে।
মরহুমের রাজনৈতিক জীবন: ৬৯ এ বরহামগঞ্জ কলেজের ছাত্র-ছাত্রী সংসদ নির্বাচনে তিনি সহ-সভাপতি (ভি.পি) নির্বাচিত হন, উমেদপুর ইউনিয়নের তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন ও তাঁর স্ত্রী সালমা বেগম একই ইউনিয়নের একবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন, আওয়ামী লীগের সমর্থনে ৮৯ এর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন, স্বাধীনতা যুদ্ধে সক্রিয় অংশ নেন। মুজিব বাহিনীর নেতা হিসেবে তিঁনি স্বাধীনতা যুদ্ধে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেন। ছেলে-বেলায় একজন ভাল ফুটবল খেলোয়াড় হিসেবে পরিচিত ছিলেন। এছাড়া শিবচরের এএইচ আঃ মান্নান খান ৮০” দশকে শিবচরের একজন প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব ছিলেন। তৎকালীন স্বৈরাচার সরকার পতনের পরে ৯১’এর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিঁনি মাদারীপুর-১ (শিবচর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরীর পক্ষে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখেন। ’৯১ এর সেই নির্বাচনে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী দাদা ভাইয়ের মৃত্যুর পরে বর্তমান সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী এমপি”র পক্ষে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেন।
এদিকে আওয়ামী লীগের দু:সময়ের সাহসী বর্ষীয়ান নেতা এ এইচ আ: মান্নান খানের মৃত্যুতে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ ও জাতীয় সংসদের আওয়ামী লীগ পার্লামেন্টারি পার্টির সেক্রেটারী নূর-ই-আলম চৌধুরী এম.পি গভীর শোক প্রকাশ করছেন।

Share.

About Author

Leave A Reply