জাতীয় দলের পাশাপাশি ৬০ ক্রিকেটারকে প্রস্তুত রাখছি : নান্নু

0

ক্রীড়া প্রতিবেদক : জাতীয় দলের পাশাপাশি ‘এ’ দল, এইচপি দল ও বিসিবি একাদশের জন্য মোট ৬০ ক্রিকেটারকে সব সময়ের জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। সম্প্রতি বিসিবি কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডেকেছে ৩৬ ক্রিকেটারকে। এদের মধ্যে সুযোগ হয়নি এনামুল হক বিজয় এবং কাজী নুরুল হাসান সোহানের। প্রধান নির্বাচক জানালেন, তারা ৬০ জনের পুলের ভেতরেই আছে। তাদের সুযোগ দেওয়া হবে ‘এ’ দলের পরবর্তী অ্যাসাইনমেন্টে। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সোমবার গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন মিনহাজুল আবেদীন। মিরপুরে তার কথা শুনেছে রাইজিংবিডি:
কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ৩৬ জনকে নেয়ার পেছনে পরিকল্পনা কী?
মিনহাজুল আবেদীন : এটা কন্ডিশনিং ক্যাম্প টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টিকে মাথায় রেখে করা হয়েছে। কন্ডিশনিং ক্যাম্প করার কারণ অনেকদিন ধরে আমাদের খেলোয়াড়রা ফিটনেসের বাইরে। এই চারদিনে কিছু খেলোয়াড়কে দেখা হচ্ছে। আমাদের যারা খেলোয়াড় আছে সবাই এখানে যোগ দিয়েছে। ফিটনেসের স্ট্যান্ডার্ড দেখার জন্য, যেটা মারিও দেখছে। এটা নিয়েই এখন কাজ করছি।
আপনার দায়িত্ব বাড়ানো হয়েছে। কোন পরিকল্পনায় এগোচ্ছেন?
মিনহাজুল আবেদীন: সামনে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ আছে, যেটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটে থিতু হওয়ার জন্য এটা খুবই জরুরি। যে কোনো টেস্ট প্লেয়িং নেশন ক্রিকেটে প্রতিষ্ঠিত হয় দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেট দিয়ে। এই ফরম্যাটে যত ভালো ক্রিকেট খেলা যাবে বাকি ফরম্যাটগুলোতে তত ভালো খেলা যাবে।
এটা চিন্তা করে আমাদের ‘এ’ দলের জন্য দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটের শিডিউল করা হয়েছে। সামনের মাসে ‘এ’ দল শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে খেলার জন্য। সেখানে তিনটি চারদিনের ম্যাচ খেলবে। সেই সঙ্গে অনেকগুলো প্লেয়ারকে দীর্ঘ পরিসরের জন্য প্রস্তুত করার একটা পরিকল্পনা করে রেখেছি। সঙ্গে ওয়ানডে আছে, টি-টোয়েন্টি আছে। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। এটা নিয়ে এই বিপিএল থেকে আমরা কাজ করার পরিকল্পনা করেছি। একই সঙ্গে আফগানিস্তান, জিম্বাবুয়েকে নিয়ে শুরু হতে যাওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজটি ভালো সুযোগ। এখান থেকেই পরিকল্পনা শুরু হচ্ছে।
সম্প্রতি জাতীয় দলে খেলা বিজয়কে বাদ দেওয়া হয়েছে। ‘এ’ দলের হয়ে সফর করা সোহানও নেই?
মিনহাজুল আবেদীন: বিজয়-সোহানকে ‘এ’ দলের সঙ্গে রাখা হয়েছে। সাথে সাথে কিছু খেলোয়াড়কে এইচপি দলের সাথে যুক্ত করার জন্য দেয়া হয়েছে। যেটা এই সিরিজের বাইরে। ওরাও এইচপি দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছে। আমাদের যে ৬০টা খেলোয়াড়ের একটা দল আছে। এই ৬০টা খেলোয়াড়কে কিন্তু আমরা সব ফরম্যাটের জন্য, ‘এ’ দল, এইচপি, বিসিবি একাদশ সবাইকে সরবরাহ করার জন্য একটা পরিকল্পনা করে রেখেছি। সবাইকে সব জায়গায় কিভাবে খেলানো যায় সেই পরিকল্পনাই করা হচ্ছে। সেভাবেই তাদেরকে প্রস্তুত করা হচ্ছে।
‘এ’ দলের পরবর্তী শিডিউল?
মিনহাজুল আবেদীন: সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা। তিনটা চারদিনের ম্যাচ রয়েছে। সাথে সাথে এইচপির আবার ভারতের অনূর্ধ্ব-২৩ দলের সঙ্গে পাঁচটা ওয়ানডে আছে সেপ্টেম্বরের ১৭ তারিখ থেকে। এ দুইটা আপাতত চূড়ান্ত আছে।
সোহান-বিজয় ‘এ’ দলে থাকলে কন্ডিশনিং ক্যাম্পে নেই…
মিনহাজুল আবেদীন: যেটা বললাম, সবাইকে নিয়ে পরিকল্পনা করা হচ্ছে। যে ৬০ জন আছে, এখানে সবাই আছে। কাউকে চোখের আড়াল করা হচ্ছে না।

Share.

About Author

Leave A Reply