সরকারের টাকার কোনো অভাব নেই: অর্থমন্ত্রী

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকা : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আমাদের (সরকারের) টাকার কোনো অভাব নেই। আমি আপনাদের বলছি টাকা থাকার একটা বেঞ্চমার্ক আছে।
সেই বেঞ্চমার্কের ওপরে আমাদের এখন ৯২ হাজার কোটি টাকা বেশি আছে। এটা তো লুকোচুরি করার কোনো ব্যাপার না।
আজ বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে মন্ত্রীর কার্যালয়ে বিশ্বব্যাংকের আঞ্চলিক পরিচালক জৌবিদা খেরোয়াস এল্লাওয়া (তড়ঁনরফধ কযবৎড়ঁং অষষধড়ঁধ) এর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, আমি আপনাদের বলছি টাকা থাকার একটা বেঞ্চ মার্ক আছে। সেই বেঞ্চ মার্কের উপরে আমাদের এখন ৯২ হাজার কোটি টাকা বেশি আছে। এটা তো লুকোচুরি করার কোনো ব্যাপার না।
মন্ত্রী বলেন, সরকারের অর্থের সংকট নাই। যদি আপনারা কোথাও কোনো ব্যাংকে গিয়ে টাকা না পান, যদি এলসি (লেটার অব ক্রেডিট) সেটেলমেন্ট করতে না পারেন, যদি পেমেন্ট না করতে পারেন, তবে আমাকে এসে বলবেন। এগুলো আমরা কিভাবে বিশ্বাস করবো?’
তিনি আরো বলেন, সরকার কোথায় টাকা খুঁজছে? সরকার টাকা খুঁজলে কোথা থেকে পাবে? সরকারের টাকা না থাকলে দেওয়ার কোনো ব্যবস্থা আছে? আপনারা কেউ সরকারকে টাকা দেবেন?
অর্থমন্ত্রী প্রশ্ন তুলে আরও বলেন, টাকা তোলার রাস্তাটা কি? সেভিংস ইনস্ট্রুমেন্ট বিক্রি করতে হবে, না হলে আমেরিকা যা করে কোয়ান্টিটি বেইজিংয়ের নাম করে টাকা ছাঁপাতে হবে।
পুঁজিবাজার পড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘এটা উত্তোরণে বিশ্বব্যাংক কাজ করছে। বন্ড মার্কেট ও ক্যাপিটাল মার্কেটে কাজ করছে। ব্যাংকিং খাতে যে পরামর্শ দেওয়ার দরকার তা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। আমরা এগুলো সংশোধনে কাজ করছি।’
মন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমি পুঁজিবাজার নিয়ে বসবো সেদিন আপনারাও বসবেন। সেদিন তারা যদি এটা প্রমাণ করতে পারে যে, সরকার তাদের পক্ষে ছিল না বা আমরা তাদের বিপক্ষে। তাহলে আপনারা আমাকে বলতে পারেন। আমি তাদেরকে সব সাপোর্ট দিয়েছি। আমার কাজটি হচ্ছে তাদের সাপোর্ট দেওয়া, আমি তো বাজারে ঢুকতে পারবো না। পুঁজিবাজার ঠিক হয়ে যাবে আশা করছি।’

Share.

About Author

Leave A Reply