ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরাতে তদন্তের প্রস্তাব পাস

0

সবুজবাংলা ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত শুরুর প্রস্তাব পাস করেছে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদ। ৩১ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার ভোটাভুটিতে প্রস্তাবটির পক্ষে ভোট পড়ে ২৩২টি, আর বিপক্ষে যায় ১৯৬টি ভোট।
তবে প্রতিনিধি পরিষদের ভোটে প্রক্রিয়াকে ত্রুটিপূর্ণ আখ্যা দিয়ে, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত শুরুর সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন রিপাবলিকানরা। অন্যদিকে ডেমোক্রেটরা বলছেন, সাধারণ মানুষের দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রশ্নে ভোট গ্রহণ করা হয়েছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত শুরুর প্রশ্নে বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের ভোটাভুটি হয়। রিপাবলিকান সদস্যদের বিরোধিতার পরও প্রস্তাবটি পাস করে করে প্রতিনিধি পরিষদ। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্তের পক্ষে ভোট পড়ে ২৩২টি, আর বিপক্ষে পড়ে ১৯৬টি ভোট। এর মাধ্যমে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত শুরুর পথে আর কোন বাধা থাকলো না।
তবে এই প্রস্তাব পাসের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন রিপালিকান দলীয় সদস্যরা। পুরো প্রক্রিয়াকেই ত্রুটিপূর্ণ হিসেবে অবহিত করছেন তারা।
রিবালিকান নেতা কেভিন ম্যাকার্থি বলেন, এমন কিছু ঘটেনি যে, প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিশংসনের তদন্ত করতে হবে। স্পিকার পেলোসির কাছে আমার প্রশ্ন, কিসের ভিত্তিতে তিনি এ ভোটের আয়োজন করলেন। এটা পুরো জাতির জন্যই লজ্জার।
প্রতিনিধি পরিষদের ভোটাভুটির নিন্দা জানিয়েছে হোয়াইট হাউসও। এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসিরও সমালোচনা করে।
তবে জ্যেষ্ঠ ডেমোক্র্যাট নেতা এবং প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ট্রাম্পের বিরুদ্ধ তদন্ত শুরুর প্রস্তাব পাস হওয়াকে সত্যের জয় হিসেবে অবহিত করেছেন।
মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেন, আমি কিছুতেই বুঝতে পারছি না, রিপাবলিকানরা কেন ভীত হচ্ছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দোষী কি-না, তদন্তেই তা বেরিয়ে আসবে। প্রত্যেক সদস্যদের উচিত যুক্তরাষ্ট্রের সাধারণ জনগণের চাহিদার প্রতি সম্মান জানানো।
যুক্তরাষ্ট্রে আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেন এবং তার ছেলের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে চাপ দেয়ার খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিশংসন দাবি করে আসছে বিরোধীরা।

Share.

About Author

Leave A Reply