শুটিং করতে গিয়ে এলাকাবাসীর তাড়া খেলেন শিল্পী-কলাকুশলীরা

0

বিনোদন ডেস্ক :
সবুজবাংলা২৪ডটকম : লকডাউন অমান্য করে শুটিং করতে গিয়ে এলাকাবাসীর তাড়া খেলেন শিল্পী-কলাকুশলীরা।
গতকাল সোমবার পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহানের সংসদীয় এলাকা বসিরহাটের গুলাইচণ্ডি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত শনিবার টালিগঞ্জ থেকে ২৫ জনের একটি দল বসিরহাটের গুলাইচণ্ডি গ্রামে যায়। ওই গ্রামে সপ্তাহখানেক ধরে শুটিং হওয়ার কথা ছিল ‘রক্ত খাদক’ নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের। রোববার রাতে শুটিং শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ঝড়বৃষ্টির কারণে তা ভেস্তে যায়।
সোমবার সকালে গ্রামের আমবাগান নামক স্থানে শুটিং শুরু করেন পরিচালক। খবর পেয়ে এলাকার লোকজন আসতে থাকেন। পরিচালক ‘অ্যাকশন’ বলার সঙ্গে সঙ্গে বাগানে হাঁটতে শুরু করেন এক অভিনেত্রী। ঠিক তখন পরিস্থিতি বুঝে ওঠার আগেই এলাকাবাসী তাড়া করে পরিচালক ও অভিনয়শিল্পীদের। তারপর যে যেদিকে পারে ছুট দেন। কয়েকটি বাড়ির দরজা খোলা পেয়ে কেউ শৌচাগার, কেউ চিলেকোঠায় লুকিয়ে পড়েন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
বহিরহাটের এই অঞ্চলে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। আর আক্রান্তদের সবার সঙ্গে কলকাতার যোগ রয়েছে। এদিকে এলাকায় করোনা আক্রান্তের খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই আতঙ্ক বেড়েছে। এলাকার সবাই বেশ ভয়ে ভয়ে রয়েছেন। তার উপর লকডাউন অমান্য করে কলকাতার এক শুটিং টিম গ্রামে আসায় বেজায় চটেন এলাকাবাসী।
লকডাউনের কারণে ভারতের সমস্ত শুটিং বন্ধ রাখা হয়েছে। সেখানে এতটা ঝুঁকি নিয়ে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের শুটিং করে কী করে? এমন প্রশ্ন অনেকেই তুলেছেন। আইন অমান্য করে শুটিং করার দায়ে পরিচালকসহ ২৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একাধিক গাড়িতে করে এত লোক গ্রামে প্রবেশ করলো কীভাবে সে বিষয়ে তদন্ত করছে পুলিশ।

Share.

About Author

Leave A Reply