বাংলাদেশে স্পোর্টস টুরিজমের বিকাশে সহযোগিতা করবে মালদ্বীপ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সবুজবাংলা২৪ডটকম, ঢাকা : মালদ্বীপ স্পোর্টস টুরিজমের বিকাশে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল।
মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বাংলাদেশ সফররত মালদ্বীপের উপ-রাষ্ট্রপতি ফয়সাল নাসিমের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।
যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘মালদ্বীপ আমাদের বন্ধু ও প্রতিবেশী রাষ্ট্র। যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে বাংলাদেশ এবং মালদ্বীপ একযোগে কাজ করতে পারে। মালদ্বীপের স্পোর্টস টুরিজম বিষয়ে ভালো অভিজ্ঞতা আছে, আমরা তাদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে চাই। বাংলাদেশ শুধু নদীমাতৃক দেশই নয়, আমাদের পর্যটন নগরী কক্সবাজারে আছে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত। এখানে আমরা স্পোর্টস টুরিজমের বিকাশ ঘটাতে চাই। এটি অবশ্যই আমাদের দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে। আমরা ইতোমধ্যে কক্সবাজারে নিয়মিত বিচ ফুটবল ও বিচ ভলিবলের আয়োজন করছি।’
প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ বর্তমানে ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ডের সুবিধা ভোগ করছে। দেশের জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশই তরুণ। এই বিশাল জনগোষ্ঠীকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তরের লক্ষ্যে আধুনিক ও সময়োপযোগী প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। প্রশিক্ষিত ও দক্ষ এ জনশক্তি মালদ্বীপে রপ্তানির মাধ্যমে উভয় দেশ উপকৃত হতে পারে।’
মালদ্বীপের উপ-রাষ্ট্রপতি ফয়সাল নাসিম বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়নে ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং মালদ্বীপে ক্রিকেটের উন্নয়নে বাংলাদেশের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে মালদ্বীপ সফরের আমন্ত্রণ জানান। তিনি বাংলাদেশ থেকে অভিজ্ঞ ক্রিকেট কোচ ও খেলোয়াড় পাঠানোর অনুরোধ জানান। এ বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন মালদ্বীপের উপ-রাষ্ট্রপতি। এছাড়াও ফুটবল, টেবিল টেনিস, বাস্কেটবল, ব্যাডমিন্টন, কারাতে, জুডো, তায়কান্দো, সার্ফিংসহ অন্যান্য খেলাতেও বন্ধুপ্রতীম দুই দেশের মধ্যে প্রশিক্ষণসহ অভিজ্ঞতা বিনিময়ের পরিকল্পনার কথা জানান তিনি। দুই দেশের মধ্যে খেলোয়াড়, কোচ ও বিভিন্ন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়ার কথাও জানান মালদ্বীপের উপ-রাষ্ট্রপতি।
বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আখতার হোসেন, অতিরিক্ত সচিব আনোয়ারুল ইসলাম সরকার, মো. মোশাররফ হোসেন মোল্লা, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আজহারুল ইসলাম খান, বিকেএসপির মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাজহারুল হক, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব পরিমল সিংহ ও মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবু নাছের ভুঞা ও বাংলাদেশ টেবিল টেনিস ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খন্দকার হাসান মুনীর, মালদ্বীপের উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী ড. ইব্রাহিম হাসান, স্বাস্থ্যমন্ত্রী আহমেদ নাসিম, পররাষ্ট্র সচিব আবদুল গফুর মোহাম্মদ, বাংলাদেশে মালদ্বীপের রাষ্ট্রদূত শিরুজিমাত সমীর এবং উপ-রাষ্ট্রপতির চিফ এক্সিকিউটিভ নাজরা নাসিম।

Share.

About Author

Leave A Reply