অবরুদ্ধ মামুনুল হককে ছাড়িয়ে নিলেন হেফাজতকর্মীরা

0

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সবুজবাংলা২৪ডটকম, না.গঞ্জ :
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার রয়েল রিসোর্টে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে দ্বিতীয় স্ত্রী আমিনা তাইয়াবাসহ অবরুদ্ধ করে রেখেছে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা।
মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করা হয়েছে এ খবরে হাজারো হেফাজতকর্মী মিছিল নিয়ে ওই রিসোর্টে যান। তারপর তাকে উদ্ধার করে পাশের একটি মসজিদে নিয়ে যান।
এ সময় ওই রিসোর্টে ব্যাপক ভাংচুর চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা।
শনিবার (০৩ এপ্রিল) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্ট থেকে তাঁকে উদ্ধার করেন স্থানীয় লোকজন ও মাদ্রাসার ছাত্ররা।
এর আগে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মাওলানা মামনুল হককে লাঞ্ছিত করে।
এতে রিসোর্টের মধ্যে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন সোনারগাঁওয়ের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আতিকুল ইসলাম, এসিল্যান্ড গোলাম মোস্তফা মুন্না, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টি আই মোশাররফ হোসেন, সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) তবিদুর রহমানসহ অর্ধশতাধিক সাংবাদিক। এক পর্যায়ে মাওলানা মামুনুল হককে পুলিশের কাছ থেকে বিক্ষুব্ধ হেফাজতকর্মীরা ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে কেউ কেউ জানান।
এর আগে বিকেল থেকে মাওলানা মামুনুল হককে ওই রিসোর্টে অবরুদ্ধ করে রাখে স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশসহ সাংবাদিকরা।
ওই সময় ওসি তবিদুর রহমান বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। পরিস্থিতি এখন আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।
একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, সোনারগাঁও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সোহাগ রনি, পৌরসভা ছাত্রলীগ নেতা মাহবুবুর রহমান রবীনসহ স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতারা মামনুল হককে অবরুদ্ধ করার সময় উপস্থিত ছিলেন।

Share.

About Author

Leave A Reply