জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ও সংরক্ষণশালা’র শুভ উদ্বোধন

0

আবু রায়হান :
সবুজবাংলা২৪ডটকম, জয়পুরহাট : জয়পুরহাটের ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন জনপদ পাঁচবিবি উপজেলা সদরে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ও সংরক্ষণশালা’র শুভ উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার (১০ মে) বিকাল সাড়ে ৩ টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ জাদুঘরের উদ্বোধন করেন
সাবেক শিক্ষা সচিব ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর ঢাকা এর কিউরেটর নজরুল ইসলাম খান।
পাঁচবিবি পৌরসভা কার্যালয় প্রাঙ্গনে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ও সংরক্ষণশালা’র শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় পাঁচবিবি পৌরসভার প্রশাসক আব্দুল কাদের ব্যাপারী এর সভাপতিত্বে সম্মানীয় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জয়পুরহাট জেলা প্রশাসক শরিফুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মাসুম আহাম্মদ ভূঞা, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আরিফুর রহমান রকেট, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন মন্ডল, ধরিত্রী বাংলাদেশ পত্রিকার সম্পাদক অধ্যাপক হারুন অর রশিদ, জয়পুরহাট জজ কোর্টের জিপি এ্যাড. মোমেন আহমেদ চৌধুরী, জয়পুরহাট জজ কোর্টের পিপি এ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল, পাঁচবিবি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরমান হোসেন, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আমজাদ হোসেন, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও সাংস্কৃতিক কর্মী আমিনুল হক বাবুল ও পাঁচবিবি পৌরসভার সাবেক মেয়র হাবিবুর রহমান হাবিব।
এ সময় বক্তারা বলেন, আমরা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি যাঁর নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি, আমাদের মহান নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। শ্রদ্ধা জানাই জাতীয় চার নেতার প্রতি। শ্রদ্ধা জানাই ত্রিশ লক্ষ শহীদ ও দুই লক্ষ মা বোনের প্রতি। লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি স্বাধীনতা। আমাদের সংগ্রাম এবং নয় মাস মুক্তিযুদ্ধের বিজয় অর্জনের মধ্য দিয়ে আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি। নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের নানা বিষয় জানাতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
একাত্তরের মার্চ ছিল এক গৌরবগাথার মাস। ২৫ মার্চ থেকে লেখা শুরু হয়েছিল এক অমর মহাকাব্য, যার নাম বাংলাদেশ। এ মাসেই বাঙালি প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে। সেসব প্রতিরোধের গল্প নিয়ে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে বিভিন্ন সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে স্বাধীনতা বা মুক্তিযুদ্ধের জাদুঘর। একেকটি জাদুঘর আমাদের ফিরিয়ে নিয়ে যাবে একাত্তরের সেই বিভীষিকাময় দিনগুলোয়।

Share.

About Author

Leave A Reply